সওজ’র নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ!


মির্জা রুমন :
সওজ’র নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ৫০ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ!
  • Font increase
  • Font Decrease

সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের টাঙ্গাইল ডিভিশনে কর্মরত নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মনিরুজ্জামান এর বিরুদ্ধে প্রায় ৫০ কোটি টাকার দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। তবে এ অভিযোগগুলো তার নরসিংদী সড়ক বিভাগে নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে দায়িত্ব পালনকালীন সময়ের।

নরসিংদী সড়ক বিভাগে মো. মনিরুজ্জামানের নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে দায়িত্ব কালীন সময়ে প্রায় ৪ বছরে ছোট ছোট মেরামতের নামে যে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল তার সিংহভাগই অতিরিক্ত ব্যয় দেখিয়ে প্রাক্কলন প্রস্তুত করে দরপত্র আহ্বান এর মাধ্যমে অর্থ আত্মসাত করা হয়েছে বলে অভিযোগের অনুসন্ধান করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উন্নয়ন প্রকল্পের প্রায় প্রতিটি কাজেরই কিছু ভুয়া কাজের ব্যয় দেখানো হয়েছে এবং প্রাক্কলনগুলো পরবর্তীতে রিভাইসড করে অতিরিক্ত ব্যয় করা হয়। নরসিংদী সড়ক বিভাগের তৎকালীন  নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মনিরুজ্জামান একাই এই অর্থ আত্মসাত করেছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ রয়েছে।

তৎকালীন সময়ে সরকারি চাকুরি বিধিমালা লঙ্ঘন করে নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মনিরুজ্জামান অনেক কাজেই ঠিকাদারদের সহযোগী (পার্টনার) হিসেবে কাজ করেন বলেও অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে।

মনিরুজ্জামান ২০১৫ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত প্রায় চার বছর নরসিংদী সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। 

এই সময়ে তিনি প্রায় ৫০ কোটি টাকা অবৈধভাবে উপার্জন করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ অবৈধ উপার্জনের মাধ্যমে তিনি ও তার পরিবার ঢাকা ও তার নিজ জেলায় জমি, ফ্ল্যাট ক্রয় করেছেন বলেও জানা গেছে। হয়েছেনে ব্যক্তিগত বিলাসবহুল গাড়ির মালিক। এছাড়া তার স্ত্রী ও সন্তানদের নামে রয়েছে বহু টাকার এফডিআর।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মনিরুজ্জামান এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রতিবেদককে জানান, তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো অবাস্তব এবং অবান্তর। কেউ উদ্দেশ্যমূলকভাবে এই অভিযোগগুলো করতে পারে।